magazine_cover_27_april_17.jpg

Tolly Interview

‘‘মহিলাদের সম্মান করাটা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। এর জন্য উইমেনস ডে সেলিব্রেট করার কী প্রয়োজন?’’

tanushree interview
 ‘দুর্গা সহায়’-এর ফার্স্ট লুক লঞ্চ অনুষ্ঠানের জন্য দক্ষিণ কলকাতার এক নামী পুস্তক বিপণীতে নির্ধারিত সময়ের আগেই উপস্থিত তনুশ্রী চক্রবর্তী। প্রেস কনফারেন্স শুরুর আগে কেরিয়ার ও ব্যক্তিগত জীবনের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন তিনি। শুনলেন স্বর্ণাভ দেব  

‘দুর্গা সহায়’ ছবিতে তো একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় আপনাকে দেখা যাবে…
হ্যাঁ, আমার চরিত্রের নাম মানসী। সে বাড়ির বউ। তার মধ্যে একটা অভিজাত ব্যাপার রয়েছে। মানসী পজ়িটিভ চিন্তাভাবনা করে। সে-ই দুর্গাকে গড়ে তোলে। ব্যস, আর কিছু বলব না, বাকিটা জানতে হলে ছবিটা দেখতে হবে।

এই ছবির পরিচালক অরিন্দম শীল বলছিলেন, ‘‘এই ছবিতে একেবারে অন্যধরনের চরিত্রে দেখা যাবে তনুশ্রীকে’’…
এটা পুরোটাই অরিন্দমদার জন্যই সম্ভব হয়েছে। কারণ, একজন পরিচালকই পুতুলের মতো চরিত্রগুলি গড়ে তোলে। সেদিক থেকে বলা যায়, আমার অভিনয় যদি দর্শকদের ভাল লাগে তার পুরো কৃতিত্বটাই অরিন্দমদার। উনিই আমার ভিতর থেকে অভিনয় বের করে এনেছেন। সেদিক থেকে আমাকে ডিরেক্টরস অ্যাকট্রেস বলতে পারেন।

আপনি নাকি মনে করেন, এই ইউনিটের সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা একেবারেই স্বতন্ত্র?
সত্যিই। সেটে পরিবেশটা একেবারেই যেন বাড়ির। সারাদিন হট্টগোল, আড্ডা চলছে। শুটিং তো আছেই তার পাশাপাশি আমাদের খাওয়াদাওয়া… সব মিলে এক অনবদ্য অভিজ্ঞতা বলতে পারেন। আমাদের ১৭ দিনের শেডিউল সত্যিই মনে থেকে যাবে।
tanushree-interview-2

এই ছবিতে তো সোহিনী সরকারও গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন। ওঁর সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা কেমন?
শুধু সোহিনীর কথা কী বলব, এই ছবির প্রত্যেক অভিনেতাই শক্তিশালী। বাবানদা (কৌশিক সেন), দেবযানীদি (চট্টোপাধ্যায়), ঋক (ঋতব্রত মুখোপাধ্যায়)… সকলের সঙ্গে কাজের সুযোগটাই অসাধারণ।

ইন্ডাস্ট্রিতে অনেকেই বলছেন, তনুশ্রী দিনে-দিনে ক্রমাগত সুন্দরী হয়ে উঠছেন… এর সিক্রেট কী?
এর কোনও আলাদা সিক্রেট কী বলি! আসলে আমার মা যেভাবে আমাকে বড় করে তুলেছেন সম্পূর্ণ ক্রেডিটটাই ওঁর। এর পাশাপাশি পরিচালকদের কথা বলতে হয়। পরিচালকরাই তো তাঁদের মনের মাধুরী মিশিয়ে চরিত্রগুলি গড়ে তোলেন। সেজন্যই নায়িকাদের স্ক্রিনে এত সুন্দর দেখায়। তবে সত্যি বলতে আমি আয়ুর্বেদিক প্রোডাক্ট ব্যবহার করি। আর অর্গ্যানিক ফুড খাই। এটাই হয়তো সৌন্দর্যের রহস্য!

আপনি তো মডেলিং থেকে অভিনয়ে এসেছেন। আবার কি মডেলিংয়ে ফেরার ইচ্ছে রয়েছে?
হোয়াই নট? ভাল প্রস্তাব পেলে তবেই ভাবব। সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গ সরকারের একটি বিজ্ঞাপনে কাজ করলাম। আবার ভাল সুযোগ পেলে নিশ্চয়ই মডেলিং করব।

কাজের থেকে বিরতি নিয়ে আপনি নাকি কিছুদিন পরেই কানাডা ও ইউএসএ টুরে যাচ্ছেন?
হ্যাঁ। তবে সেটাও কাজের সূত্রেই। ব্যাপারটা খুলেই বলি। আমি একটি পার্লারের সঙ্গে যুক্ত। সেই ব্র্যান্ড ইউএসএ এবং কানাডাতেও লঞ্চ করা হবে শীঘ্রই। সেই উপলক্ষেই যাচ্ছি। কানাডা, লাস ভেগাস ও আরও কয়েকটি জায়গায় যাব। তবে সুযোগ পেলে ঘুরতেও বেরিয়ে পড়ব।

এখন তো আপনার রেস্তোরাঁ নিয়েও খুব চর্চা হচ্ছে…
শুধুমাত্র ব্যবসায়িক উদ্দেশ্য নয়, আমি তো খাওয়াতে ভালবাসি বলেই রেস্তোরাঁ খুলেছি। আমি চাই সকলে আমার রেস্তোরাঁয় আসুক। বার্গার, স্টেক, এশিয়ান কুইজ়িন, থাই স্পেশ্যাল, লেবানিজ়… প্রভৃতি নানাধরনের খাবার রয়েছে। আমি নিশ্চিত, এখানকার খাবার সকলের রসনা তৃপ্তি করবেই।

সম্প্রতি উইমেনস ডে পালিত হল। এই বিশেষ দিনটি সম্পর্কে আপনার কী অভিমত?
আমি কোনও একটা দিন উদযাপনে বিশ্বাসী নই। আমরা তখনই মহিলাদের রেসপেক্ট দিতে পারব, যখন ইকুয়ালিটির কিংবা হিউম্যানিটির কথা বলতে পারব। মহিলাদের নিরাপত্তা খুবই সাধারণ ব্যাপার। কিন্তু সমস্যা হল, কিছু মানুষ নিয়ম ভাঙে। সত্যি বলতে মানুযকে যথার্থ সম্মান দেওয়াটা জরুরি। যেহেতু মহিলাদের মধ্যে মায়ের সত্তা রয়েছে, তাই মহিলাদের সম্মান করাটা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। এটা নিয়ে আলাদা করে কিছু বলার দরকার আছে কি?

Interview | Tollywood Actress | Tanusree Chakraborty | Durga Sohay | Bengali Movie