magazine_cover_12_january_19.jpg

Anandalok Review

মিষ্টি এক নস্টালজিয়া…

রসগোল্লা

rashogolla-still

পরিচালনা: পাভেল

অভিনয়ে: উজান গঙ্গোপাধ্যায়, অবন্তিকাবিশ্বাস, রজতাভ দত্ত, খরাজ মুখোপাধ্যায়, অপরাজিতা আঢ্য, কৌশিক সেন, শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়, শুভশ্রী

ভারি মিষ্টি একটি ছবি বানিয়েছেন পাভেল। ছবির কলাকুশলীদের অভিনয়ের সঙ্গে পুরনো কলকাতার মিষ্টি একটা গল্প মিশে ছানার মিহি পাকের মতো জমে গিয়েছে ছবি, তার সঙ্গে জুড়েছে শহুরে রূপকথার রস। ছবি সত্যিই গরম রসগোল্লার মতো জমজমাট। রসগোল্লার পীঠস্থান আমরা জানি বাগবাজার। আর মিষ্টি তৈরিতে নবীন ময়রার হাতযশের গল্প তো অনেকেরই জানা। কিন্তু আদতে মানুষটা কেমন ছিলেন? আর সেইটা জানানোই এই ছবি। পাভেলকে ধন্যবাদ কোনো মেলোড্রামা ছাড়াই ঝরঝরে মেদবর্জিত চিত্রনাট্য তৈরি করেছেন। প্রতিটি চরিত্রই যেন জানে ঠিক কতখানি অভিনয় করতে হবে, কতখানি তাকে প্রয়োজন ছবিতে। ফলে ছবিটা হয়ে উঠেছে জমাট। তাছাড়া পুরনো কলকাতাকেও দুর্দান্তভাবে ধরেছেন সিনেমাটোগ্রাফার। ছবিটা নবীন চন্দ্র দাসের স্ট্রাগলের গল্প। ব্যবসায়ী পরিবারের ছেলে যখন ময়রা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিল, তখন স্বাভাবিকভাবেই কেউ তা মেনে নেয়নি। মায়ের হাত ধরে বাড়ি ছাড়ে নবীন, শুরু হয় নিজেকে প্রতিষ্ঠা করার লড়াই। স্ত্রী ক্ষীরোদের সঙ্গে দেখা হওয়া এবং রসগোল্লা বানানোর স্বপ্ন যে একই সময় শুরু তা ছবিতে ভাল করেই দেখিয়েছেন পরিচালক। ভাল লেগেছে চিত্রনাট্যকার পাভেল এবং স্মরণজিৎ চক্রবর্তীর কাজ। নবীন ও ক্ষীরোদের চরিত্রে উজান ও অবন্তিকা প্রমাণ করলেন তাঁদের মধ্যে সম্ভাবনা রয়েছে। জুটি হিসেবেও তাঁদের দিব্যি মানিয়েছে। কালিকাপ্রসাদ ভট্টাচার্য ও অর্ণব দত্তের সঙ্গীত ভাল, গল্পকে তা দিয়েছে আলাদা মাধুর্য্য। ফলে দেখে আসুন ছবিটি। বাঙালির নস্টালজিয়ায় তো মিশে রয়েছে রসগোল্লা, পাভেল তাতে ‘ফিল গুড’ এসেন্স দিয়েছেন।

এখন আপনার রিভিউ প্রকাশিত হতে পারে আনন্দলোক-এ। সিনেমা দেখে
চটপট লিখে ফেলুন রিভিউ আর ইমেল করুন

[email protected]