magazine_cover_12_decemberr_18.jpg

Anandalok Review

একটু অগোছালো

জেনারেশন আমি

generation-ami-big

পরিচালনা: মৈনাক ভৌমিক

অভিনয়ে: ঋতব্রত মুখোপাধ্যায়, সৌরসেনী মৈত্র, শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়, অপরাজিতা আঢ্য

এখানেও ‘অপু-দুর্গা’ আছে। কিন্তু অন্যরকম সম্পর্ক তাদের। এখানে দুর্গা অপুকে নিয়ে রেলগাড়ি দেখতে যায় না। প্রবল বৃষ্টিতে কোলে চেপেও রাখে না। বরং নিজেই এগিয়ে যায় অপুর গার্লফ্রেন্ডের সঙ্গে আলাপ করতে বা টাকা জমিয়ে কিনে ফেলে অপুর জন্য গিটার। আসলে মৈনাক অপু এবং তার জ্যাঠতুতো দিদি দুর্গাকে নিয়ে যে গল্পটি ফেঁদেছেন, তা বহুব্যবহৃত। এখানে অপুর সামনে বোর্ড পরীক্ষা। সবে প্রি টেস্ট হয়েছে। বাড়িতে প্রচণ্ড কড়া নিয়মের মধ্যে মানুষ সে। এরই মধ্যে ওর বাড়িতে আসে দুর্গা… নিজের মানসিক অস্থিরতা সারাতে। তারপর ভাইকে এক নতুন জীবন বাঁচতে শেখায়। কিন্তু নিজে পারে কি নিজের লক্ষ্য বেছে নিতে! যদিও ‘জেনারেশন আমি’র গোটাটাই নতুন বোতলে পুরনো মদ… কিন্তু তা-ও বলতে হয় মৈনাক গল্পটিকে খুব সুন্দর করে সাজিয়েছেন। সেখানে কোনও ন্যাকামো নেই। অপুর জীবনের কড়া শাসন আর দুর্গার জীবনের ‘স্বাধীনতা’ বেশ মিষ্টি একটা সামঞ্জস্য তৈরি করেছে। আস্তে-আস্তে গড়ে ওঠা লসেই সম্পর্কে পারস্পরিক নির্ভরতাও জন্মায়। টুকরো টুকরো কোলাজে সেগুলো দেখতে ভাল লাগে। আর সবচেয়ে ভাল লাগে এটা দেখে যে, মৈনাক সিনেমার শেষে গতে বাঁধা ভঙ্গিতে ‘সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে’ মার্কা কোনও বার্তা দিতে চাননি। অগোছালো জীবনের মতো এখানেও সব ঠিক হয় না। ফলে এই ছবি মনে আলাদা একটা দাগ কাটে। কিন্তু অগোছালোভাবটা একটু বেশি হয়ে গিয়েছে মাঝে-মাঝে। দুর্গা অপুর সমস্যা সমাধানের কথা ভাবার সঙ্গে-সঙ্গে অপুর মা মাসির বাড়ি চলে যাচ্ছে বা মাঝে মাঝেই অপুকে মারধোর করছে (অথচ অন্য সময় প্যান্ট কিনতে নিয়ে যাচ্ছে!)… মনে হয়েছে গাঁথনিতে সিমেন্টের একটু অভাব। আর ‘গানওয়ালা’ অনুষ্ঠানটি কী, যেখানে হঠাৎ কিছু না করেই অপু চান্স পেয়ে গেল!

কিন্তু অভিনয়ে কেউ কোনও কমতি করেননি। অপুর চরিত্রে ঋতব্রতকে দেখে মনে হয়েছে চরিত্রটি তাঁর জন্যই তৈরি। সৌরসেনীও দুর্দান্তরকমভাবে অবাক করেছেন। অপরাজিতাকে কিছু ক্ষেত্রে অতিনাটকীয় লাগলেও, ভাল লেগেছে। শান্তিলাল এবং ঋতব্রতর শেষে কথা কাটাকাটির জায়গাটি তো অসাধারণ। ফলে অভিনয় এবং কিছু মুহূর্তের উপর ভর করেই ‘জেনারেশন আমি’ একটি ফিল গুড ছবি হিসেবে দর্শকদের সামনে এসেছে। যদিও ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোর এবং গানগুলো আরও ভাল হতে পারত।