magazine_cover_12_february_19.jpg

Anandalok Review

গল্পই নায়ক

বাচ্চা শ্বশুর

Baccha-Shoshur-still

পরিচালনা: বিশ্বরূপ বিশ্বাস

অভিনয়ে: জিৎ, কৌশানী, চিরঞ্জিত, অম্বরীশ ভট্টাচার্য, আমন মেহরা

এই ছবির পরিচালক কে, সেটা সিনেমা শেষ করার পরও আপনাকে তাড়া করে বেড়াবে। কারণ এ নিয়ে তো কম জলঘোলা হল না! কাগজে কলমে বিশ্বরূপ বিশ্বাস ‘বাচ্চা শ্বশুর’-এর পরিচালক হলেও, পাভেল তো বটেই, জিৎও বারবার পাভেলকেই সব জায়গায় এগিয়ে দিয়েছেন। সমস্ত লাইমলাইট তাঁকে দিয়েছেন। এমনকী, ছবি দেখতে গিয়েও দেখা গেল, ছবির শেষে পাভেলেরই মুখ। শুটিংয়ের কিছু ভিডিয়োতে তিনিই জিৎকে নির্দেশ দিচ্ছেন, ক্যামেরার চোখও তাঁর! ফলে প্রশ্ন জাগতে পারে, ‘বাচ্চা শ্বশুর’ আদতে ঠিক কার পরিচালনা? তবে যে-ই পরিচালনা করে থাকুন, তাঁকে ধন্যবাদ। অবশ্য পরিচালনা নয়, গল্পের জন্যও ধন্যবাদ প্রাপ্য। কারণ অনেকদিন পরে, পুরোদস্তুর হার্ডকোর ‘কমার্শিয়াল’ ছবিতে বেশ নিটোল একটা গল্প পাওয়া গেল। ভাল লাগল, জিৎকে নিজের লার্জার দ্যান লাইফ ইমেজ ছেড়ে বেরিয়ে এসে গল্পের চরিত্রের সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নিতে দেখে। ছবির ট্রেলর দেখে নিশ্চয়ই এতদিনে সকলে বুঝে গিয়েছেন যে, জিৎ ওরফে স্পন্দন এবং কৌশানী ওরফে জোনাকির ছেলে স্পন্দনের শ্বশুরমশাইয়ের (চিরঞ্জিত) গলায় কথা বলতে শুরু করে। কিন্তু কেন? শ্বশুরমশাইয়ের যে এই বিয়েতে মত ছিল না, তা বলাই বাহুল্য। ফলে স্পন্দন এবং জোনাকি পালিয়ে বিয়ে করে। তারপরেই দেখা যায় শবশুরমশাই ‘ফিরে’ এসেছেন বাচ্চার গলায়। শুধু স্পন্দই শোনে তার গলা। প্রথমে মনে হতেই পারে, এটি স্পন্দনের মনস্তাত্বিক সমস্যা। কিন্তু পরে যে গল্পের খোঁজ পাওয়া যায়, সেটা না হয় সিনেমা হলে গিয়েই দেখবেন। শুরুতেই যা বললাম, এই ছবিতে গল্পই নায়ক। জিৎ শুধু তার সঙ্গে তাল মিলিয়েছেন মাত্র। তবে কমার্শিয়াল উপাদান ঢোকাতে গিয়ে বেশ কিছু হাস্যকর দৃশ্যের অবতারণা ঘটেছে, খটকা লেগেছে বেশ কিছু জায়গায়… তবে শেষ পর্যন্ত যে জিৎ নিজের ইমেজ ভেঙে গল্পের শরণাপন্ন হয়েছেন, সেটা দেখে ভাল লাগল। অভিনয়ের ক্ষেত্রে চিরঞ্জিত এবং বিশেষ করে অম্বরীশের নাম বলতে হয়। ভাল লেগেছে তাঁদের। তবে কৌশানীর তেমন কিছু করার ছিল না। তবে বাচ্চাটিকে ভীষণই মিষ্টি লেগেছে। ছবিতে গানের ব্যবহার ভাল, কিন্তু ‘আয় তবে সহচরী’ ব্যবহারের তাৎপর্য বোঝা গেল না। তবে সব মিলিয়ে ‘বাচ্চা শ্বশুর’ খারাপ লাগবে না। যদিও, জিৎ-ভক্তরা ছবিটি কতটা পছন্দ করবেন, সেই প্রশ্ন থেকে গেল।

এখন আপনার রিভিউ প্রকাশিত হতে পারে আনন্দলোক-এ। সিনেমা দেখে
চটপট লিখে ফেলুন রিভিউ আর ইমেল করুন

[email protected]