magazine_cover_12_september_17.jpg

Anandalok Review

  • x

    খোকা ৪২০

    পয়সা উশুল ছবির সব মশলাই আছে খোকা ৪২০-এ। এই ছবিই আর একবার প্রমাণ করল, নাচ ও অ্যাকশনে দেবকে টেক্কা দেওয়া এখনও বেশ শক্ত। ছবি শুরুই হচ্ছে দুর্দান্ত অ্যাকশন দিয়ে। যেখানে কৃষ (দেব) এক প্রেমিককে সাহায্য করছে তার প্রেমিকাকে পেতে। কৃষের এক ঘুষিতে কুপোকাত একটির পর একটি গুন্ডা। অবশ্য শুধু দমনে নয়, রোমান্সেও সে ভগবান কৃষ্ণের চেয়ে কম কিছু নয়।বড়লোকের একমাত্র সন্তান কৃষের প্রেমিকা মেঘা (নুসরত)।  এদিকে মেঘা তার বান্ধবী ভূমিকে , কৃষকে রাজি করায় ভূমির প্রেমিক সাজতে।

    More
  • x

    রাঁঝনা

    বলিউডে প্রবেশ করেই একখানি সিক্সার হাঁকিয়েছেন ধনুষ। ‘রাঁঝনা’ ছবিতে আর বিশেষ কাউকে দাঁত ফোটাতে দেননি তিনি। তাঁর বিপরীতে আছেন সোনম কপূর। সোনমের অভিনয় নিয়ে একটা কথাই বলতে হয়। এখন অবধি তাঁর কেরিয়ারের শ্রেষ্ঠ অভিনয়টা ‘রাঁঝনা’তেই করেছেন সোনম। গল্পের পটভূমিকা বারাণসী। হিন্দু পণ্ডিতের ছেলে কুন্দন (ধনুষ) প্রেমে পড়ে মুসলমান প্রোফেসরের মেয়ে জ়োয়ার (সোনম)। এরপর…না তথাকথিত প্রেমের গল্পের লাইনে হাঁটেনি ‘রাঁঝনা’। ছোট্ট চরিত্রে অভয় দেওলকে পাওয়া যায়। যদিও তিনি অভিনয়ে সুযোগ পাননি। আরও একজনের নাম না নিলে অন্যায় হবে, তিনি হলেন মহম্মদ জ়িশান আয়ুব।

    More
  • x

    গণেশ টকিজ়

    এই ছবির হাত ধরেই নাকি পরিচালক অঞ্জন দত্ত হার্ডকোর কমার্শিয়াল ছবির ময়দানে নামতে চেয়েছিলেন। আপাতত, অঞ্জনের প্ল্যান স্থগিত রাখা ছাড়া উপায় নেই। কারণ, ‘গণেশ টকিজ়’ এমন একটি ছবি, যেখানে সবকিছু থেকেও কিছুই নেই! কমার্শিয়াল ছবির সমস্ত মশলাই মজুত রয়েছে এই ছবিতে। ইমোশন, ড্রামা, অ্যাকশন, সোশ্যাল মেসেজ, এমনকী আইটেম নম্বর পর্যন্ত রাঙিয়ে তুলেছে ‘গণেশ টকিজ়’কে। তবে ছবিতে যেটার অভাব সবচেয়ে বেশি, সেটা হল, একটি জমাটি গল্প। ছবির শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত, কোনও সময়ই এই ছবিটি দানা বাঁধতে পারেনি। ছবির গল্প একটি বাঙালি মেয়ে এবং মারোয়াড়ি ছেলের প্রেম নিয়ে। তাদের সম্পর্ক বাড়ির কেউ মেনে নেবে না বলে, এই কপোত-কপোতী জুটি এক ফন্দি আঁটে।

    More