magazine_cover_27_july_17_a.jpg

Anandalok Review

  • x

    ঝুমুরা

    ঝুমুর গানের কথা এখন আর কতজন জানেন? ওয়াকিবহাল লোক ছাড়া সত্যিই এই বিষয়ে ‘জানাশোনা’ লোক কম। সেইরকম একটি বিষয় নিয়ে নিজের প্রথম সিনেমা বানিয়েছেন অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায় (‘ওপেন টি বায়োস্কোপ’-খ্যাত নন), এবং বলতে বাধা নেই, কাজটি বেশ ভালই হয়েছে। ছবিটি শেষ পর্যন্ত ঝুমুর নিয়ে একটি ডকুমেন্টারি হয়ে যেতে পারত। কিন্তু তা না হয়ে হয়েছে সুন্দর প্রেমের গল্প। ঝুমুর নিয়ে একটি আর্টিকল লেখার জন্য, রিসার্চ করতে পুরুলিয়া যায় তরুণ সাংবাদিক সাহানা (সোহিনী), সঙ্গে ফেটোগ্রাফার ঋক (সমদর্শী)। সারাক্ষণ দু’জনে ঝগড়া করে, সদ্ভাব মোটেই নেই। দু’জনেরই প্রেমিক-প্রেমিকা আছে। কথাটা বললাম কারণ পরে কাজে লাগবে।…

    More
  • x

    89

    89! সংখ্যাটি কীসের? এই কৌতূহলই আপনাকে প্রেক্ষাগৃহে টেনে নিয়ে যাবে নিশ্চয়। ছবিটিতে খুন আছে, বিস্ফোরণ আছে, পূর্ব জন্মের অভিজ্ঞতাও আছে। এই শব্দগুলো আরো কৌতূহল বাড়িয়ে দেবে, তাই ফিল্মের গল্প বলে সাসপেন্স মাটি করা হচ্ছে না। সুতরাং সিনেমায় কে কাকে খুন করল বা কে কার প্রেমে পড়ল সে সবের ব্যাখ্যা না করে সিনেমার অন্যান্য দিকগুলি ফিরে দেখা যাক। এই ছবিতে কম আলোর ব্যবহার কখনও হলিউডের ফিল্ম ‘শাটার আইল্যান্ড’এর কথা মনে করিয়ে দেবে,…

    More
  • x

    শজারুর কাঁটা

    ষাটের দশকের একটি গল্পকে ২০১৪-য় এনে তাতে অতিরিক্ত রহস্যের বাতাবরণ সৃষ্টি করা হয়েছে, কিন্তু শজারুর কাঁটা গল্পের যে মূল সুর, দীপা ও দেবাশিসের দাম্পত্য শীতলতা থেকে রোম্যান্টিকতায় উত্তরণ, তা তো ধরাই পড়েনি! শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের গল্পে কুশীলবদের যেরকম বয়ঃক্রমের উল্লেখ আছে, সিনেমা তার ধারকাছ দিয়েও যায়নি। আড্ডাচক্র হয়েছে নাটকের দল, কিন্তু প্রবাল ছাড়া অন্য কোনও চরিত্রকে স্পষ্ট করে দেখানোই তো হল না! গল্পে কিন্তু সকলের নৃপতি লাহার বাড়ির আড্ডাধারীদের সকলের উপরই সমান গুরুত্ব দেওয়া হয়েছিল। সে যা-ই হোক, গল্পে যেমন রহস্য অতটা জোরদার ছিল না, সিনেমায় কিন্তু তার অভাব পূরণ করার চেষ্টা হয়েছে। তবু খুনের জায়গার নাম থেকে অপরাধীর নাম খোঁজার জায়গাটা একটু আরোপিত লাগল।

    More