magazine_cover_12_january_20.jpg

Tolly News

মামলার পথে প্রিয়ঙ্কা!

রাহুল বললেন, ‘আমার ছেলেকে বড় করতে চাওয়া হয়েছে এক কোটি ২৫ লক্ষ টাকা! আর কী বলব!’

rahul-priyanka-big

রাহুল-প্রিয়ঙ্কার বিচ্ছেদ নিয়ে ঝামেলা যেন কিছুতেই মিটতে চাইছে না! রাহুলের কাছ থেকে ছেলে সহজের ভরণ-পোষণের অর্থ চেয়ে এ মাসের ১৬ তারিখ আদালতে মামলা করেন প্রিয়ঙ্কা সরকার। তাঁদের সেপারেশন চলছে ২০১৬ সালের জুলাই-অগস্ট মাস থেকেই। একসময় ঠিক হয়েছিল মিউচুয়াল ডির্ভোস হবে রাহুল-প্রিয়ঙ্কার। কিন্তু তা আর হল না। আপাতত কনটেসটেড ডিভোর্সের পথেই এগোচ্ছেন প্রিয়ঙ্কা। সঙ্গে জুড়েছেন বিশ্বাসভঙ্গ, শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন এবং খোরপোষের মামলাও। আসলে ঝামেলা শুরু হয় যখন প্রিয়ঙ্কা তাঁর ছেলে সহজের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ফি মাসে কিছু অর্থ দাবী করেন রাহুলের কাছে। শোনা যায়, রাহুল নাকি সেই প্রস্তাব উড়িয়ে দিয়ে বলেন, নিয়মিত টাকা দেওয়া তাঁর পক্ষে সম্ভব নয়, মাঝেমধ্যে কিছু কিছু টাকা দিতে পারেন তিনি। এবছরের শুরুর দিকে ছেলে সহজকে বড় স্কুলে ভর্তি করার জন্য উদ্যোগ নেন প্রিয়ঙ্কা। বলা বাহুল্য, বড় স্কুলে ভর্তির প্রাথমিক খরচও বেশ বড়সড়ই। সেই সূত্রেই রাহুলের কাছে সহজের ‘অ্যাডমিশন ফিজ়’ বাবদ কিছু টাকা দাবী করেন প্রিয়ঙ্কা। কিন্তু রাহুল নাকি এক্ষেত্রেও অর্থ সাহায্যের ব্যাপারটি এড়িয়েই যান। ফলস্বরূপ, সহজকে নাকি এবছর থেকে যেতে হয় প্লে স্কুলেই! সহজের জন্য খরচের ‘বহর’ শুনে রাহুল নাকি বলেছেন, ‘সহজকে তাঁর লাগবে না!’ যদিও রাহুলকে ফোন করায় তিনি জানালেন, ‘‘প্রথমত নিজের এক্স ওয়াইফ ও সন্তানের জন্য টাকা দিয়ে তো কেউ রসিদ কাটিয়ে রাখে না! আমিও তা করিনি। আর দ্বিতীয়ত, আমাদের মতো পরিবারের কোনও বাচ্চাকে বড় করতে যদি কেউ এক কোটি ২৫ লক্ষ টাকা দাবী করেন, তা হলে আমার আর কী-ই বলার থাকতে পারে! তবে এটুকু জানিয়ে রাখি, প্রিয়ঙ্কা এখন যে তিন কামরার ফ্ল্যাটটিতে থাকেন, তার অনেকটা টাকাই কিন্তু আমার দেওয়া।’’

দেখা যাক, কোথাকার জল কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়…

RAHUL | PRIYANKA | DIVORCE | SON.