Author Archives: admin

Dharma production called dev

করণ জোহরের সংস্থাকে সাহায্য করলেন দেব?

‘হইচই আনলিমিটেড’-এর শুটিং যে উজবেকিস্তানে হয়েছিল এ তো সকলেই জানে। কিন্তু এটা জানে না যে সম্প্রতি করণ জোহরের ‘ধর্মা প্রোডাকশন’-এর পক্ষ থেকে দেবের কাছে গিয়েছিল একটা ফোন…

করণ জোহরের সংস্থাকে সাহায্য করলেন দেব?

‘হইচই আনলিমিটেড’-এর শুটিং যে উজবেকিস্তানে হয়েছিল এ তো সকলেই জানে। কিন্তু এটা জানে না যে সম্প্রতি করণ জোহরের ‘ধর্মা প্রোডাকশন’-এর পক্ষ থেকে দেবের কাছে গিয়েছিল একটা ফোন৷

করণ জোহরের সংস্থাকে সাহায্য করলেন দেব?

‘হইচই আনলিমিটেড’-এর শুটিং যে উজবেকিস্তানে হয়েছিল এ তো সকলেই জানে। কিন্তু এটা জানে না যে সম্প্রতি করণ জোহরের ‘ধর্মা প্রোডাকশন’-এর পক্ষ থেকে দেবের কাছে গিয়েছিল একটা ফোন৷ কী কথাবার্তা হয়েছিল সেই ফোনে? শোনা গিয়েছে, গতকাল রাতের দিক ধর্মা প্রোডাকশনের তরফ থেকে যে ফোনটি আসে, তাতে প্রাথমিক ভাবে দেবের ছবির প্রসঙ্গে আলোচনা শুরু হলেও সেটি বাঁক নেয়, কীভাবে উজবেকিস্তানে শুটিং করা যায়, নিয়মাবলী কী কী… সেই দিকে! নতুন কোথাও ঘুরতে যাওয়ার আগে আমরা যেমন অভিজ্ঞজনেদের কাছ থেকে সাজেশন নিই, ঠিক সেরকম ব্যাপার আর কী৷ তবে শুধু উজবেকিস্তানে শুট কীভাবে করতে হয় তা জানার জন্য ধর্মা দেবকে ফোন করবে, এটা একটু কষ্টকল্পনা নয় কি? তা হলে কি বাংলায় ছবি বানানোর প্ল্যান রয়েছে করণ জোহরের? সে জন্যই দেবের সঙ্গে এই বার্তালাপ? ‘নো কমেন্টস’ বলে মুখে কুলুপ এঁটেছেন দেব!
বলিউডকে চিরকাল টলিউড যে সাহায্য করে গিয়েছে তার সাক্ষী ইতিহাস। তবে বর্তমানেও যে তার অন্যথা হয় না তা এই ছোট-ছোট সৌজন্যমূলক ঘটনা থেকেই বোঝা যায়৷

Dev | Karan Johar | Dharma Production | New Movie | Telephone

mimi-home

Mimi-new-avatar

পপস্টার মিমি!

ইস্তানবুলের এগজ়টিক লোকেশন কাপাডোকিয়ায় জন্ম হল এক বাঙালি পপ-তারকার! তবে দুনিয়া তাঁকে চিনতে শুরু করবে আগামী ২২ সেপ্টেম্বর থেকে…

mimi-small

পপস্টার মিমি!

ইস্তানবুলের এগজ়টিক লোকেশন কাপাডোকিয়ায় জন্ম হল এক বাঙালি পপ-তারকার! তবে দুনিয়া তাঁকে চিনতে শুরু করবে আগামী ২২ সেপ্টেম্বর থেকে, যেদিন ইউটিউবে আছড়ে পড়বে তাঁর প্রথম ‘সিঙ্গল’। তিনি নায়িকা তথা সাংসদ, মিমি চক্রবর্তী!

পপস্টার মিমি!

ইস্তানবুলের এগজ়টিক লোকেশন কাপাডোকিয়ায় জন্ম হল এক বাঙালি পপ-তারকার! তবে দুনিয়া তাঁকে চিনতে শুরু করবে আগামী ২২ সেপ্টেম্বর থেকে, যেদিন ইউটিউবে আছড়ে পড়বে তাঁর প্রথম ‘সিঙ্গল’। তিনি নায়িকা তথা সাংসদ, মিমি চক্রবর্তী!
যদিও ‘মন জানে না’ ছবির ‘দেখলে তোকে বদলায় দিন’ গানটি ‘গায়িকা মিমি’র সঙ্গে দর্শকদের প্রাথমিক পরিচয়টুকু করিয়ে দিয়েছে ইতিমধ্যেই কিন্তু সত্যি বলতে কী, কোনও বাঙালি গায়িকার সিঙ্গলে যে এরকম আন্তর্জাতিক ছোঁয়া থাকতে পারে, তা গানটি না দেখলে বিশ্বাস করা কঠিন। নিঃসন্দেহে বলা যায়, এই ‘সিঙ্গল’টির মাধ্যমে নিজের তৃতীয় কেরিয়ার অপশনটিও সেট করে ফেলতে চলেছেন মিমি!

১৭ জন ক্রু-মেম্বর, সাত দিন ধরে কাপাডোকিয়ার প্রবল গরম-চরম ঠান্ডায় শুট করেছে মিমির তিনটি গান। যার প্রথমটি রিলিজ় করবে আর ঠিক ১০ দিন পরে। গতকাল আনন্দলোক-এর ফেসবুক লাইভ আড্ডা সেই কথা প্রথমবার ঘোষণা করার পর মিমি জানান, কী ধরনের প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যে শুটিং পর্ব সেরেছেন তাঁরা। মিমির কথায়, ‘‘ওখানকার ওয়েদার? ও মাই গড! দিনের বেলা তাপমাত্রা হয়তো দেখাচ্ছে ৩৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড কিন্তু আপনি ফিল করবেন ৪৫-৫০ ডিগ্রির মতো, এতটাই চড়চড়ে রোদ ওখানে! আবার সন্ধে হতে না হতেই টেম্পারেচর নেমে যেত ৪-৫ ডিগ্রির নীচে। সঙ্গে প্রবল হাওয়া! তবে ওখানে সূর্য অস্ত যেত রাত ন’টায়।’’ তারপরেই যোগ করলেন, ‘‘সূর্যের তাপে হাতের চামড়া পুড়ে গিয়ে সাপের খোলসের মতো উঠতে শুরু করেছিল!’’ তবে এসব কষ্টের কথা এখন আর কিছুই মনে করতে চান না মিমি। ফাইনাল এডিট হওয়ার পর (তখনও কালার কারেকশন হয়নি) গানটি যখন আনন্দলোক প্রতিনিধিদের সঙ্গে বসে মোবাইল স্ক্রিনে দেখলেন, তখন তাঁর চোখ-মুখের দীপ্তিই বলে দিচ্ছিল, ‘ড্রিম প্রোজেক্ট’-এর ফাইনাল ইগজ়িকিউশন পর্বে এসে ঠিক কতটা তৃপ্ত তিনি। প্রসঙ্গত, মিমির এই ‘ড্রিম প্রোজেক্ট’-এ সিনেমাটোগ্রাফির দ্বায়িত্বে ছিলেন শুভঙ্কর ভড়, কোরিয়োগ্রাফ করেছেন বাবা যাদব এবং মিউজ়িক কম্পোজ়িশনের দ্বায়িত্বে ছিলেন ডাব্বু। তবে পুরো প্রজেক্টটিই কনসেপচুয়ালাইজ় করেছেন মিমি স্বয়ং! তাহলে কি খোলা থাকল তাঁর চতুর্থ কেরিয়ার অপশনও?
mimi, pop song.

নতুন বাংলা গানের পার্বণে লোপামুদ্রা এবং তাঁর সহকর্মীরা

lopamudra-bigসেই ছিল এক দিন আমাদের। যখন পুজোর আগে দোকানে ভিড় করে পুজোর অ্যালবাম কিনত আপামর বাঙালি। পুজোযাপনের আগে হইহই করে চলত গানযাপন। শিল্পীরাও যেন উৎসুক হয়ে থাকতেন, পুজোর আগে অ্যালবাম রিলিজ়ের জন্য। কিন্তু সেই দিন এখন গত। ক্যাসেট, সিডি, এমপিথ্রি হয়ে গান এখন সম্পূর্ণরূপে ডিজিট্যাল, সিঙ্গল রিলিজ় করেই ক্ষান্ত দিচ্ছেন সকলে। দশ বারোটা গান সম্বলিত একটি অ্যালবাম কেনার বা শোনার সময় কোথায় মানুষের? আর এই না শোনার অভ্যেস থেকেই চালু হয়েছে একটি লব্জ, ‘‘ভাল গান এখন আর হচ্ছে কোথায়?’’ কিন্তু এই বিশ্বায়নের যুগে যে হিন্দি, ইংরেজি বা বাংলা সিনেমার গানই বাংলা বেসিক গানকে গিলে ফেলছে, সেটা বুঝেও যেন না বোঝার ভান বাঙালির। তাই নতুন বাংলা গান শোনা নিয়েও তাদের অনীহা। কিন্তু ভাল গান কি হচ্ছে না? নিশ্চয়ই হচ্ছে… হয়তো সেটা সংখ্যায় বেশি নয়। বহুবার বহু শিল্পী কথাটা বলেছেন। কিন্তু অনভ্যেস তৈরি হলে কী করবেন। কিন্তু একজন শিল্পী যে সহজে হাল ছাড়ার পাত্রী নন, তিনি লোপামুদ্রা মিত্র। তিনি যেন পণ করে ছিলেন নতুন গান মানুষকে শুনিয়ে ছাড়বেন। শুধু দরকার ছিল একটি মঞ্চের, যেখানে সকলে এসে একসঙ্গে নতুন বাংলা গানের জয়ধ্বজা তুলতে পারেন। সেই ভাবনার সূত্র ধরেই লোপামুদ্রা মিত্র শুধু করেন একটি অনুষ্ঠান, ‘নতুন গানের পাব্বনি’। হ্যাঁ, ‘পাব্বনি’ই বটে। বারো মাসে তেরো পার্বণের রসে মজে থাকা বাঙালির হৃদয়তন্ত্রে নাড়া দেওয়ার এর চেয়ে ভাল উদ্দেশ্য আর কী হতে পারে। প্রথম বছর অভূতপূর্ব সাফল্যের পর এবছরও ফিরে এসেছে এই অনুষ্ঠান। রাত পোহালেই, মানে আগামিকাল অহীন্দ্র মঞ্চে শুরু হয়ে যাবে বাংলা গানের এই উদ্‌যাপন। লোপামুদ্রা মিত্র বললেনও সেই সূত্র ধরে, ‘‘আসলে আমি নিজে তো বাংলা গানেই বেঁচে এসেছি সারাজীবন। তাই এই স্বপ্নটাও আমার মধ্যে প্রোথিত হয়েছে, সব বয়সের সব প্রজন্মের গায়ক-গায়িকা একসঙ্গে বাংলা গান গাইবেন। সেই জন্যই ‘নতুন গানের পাব্বনি’। নতুন গানের উদ‌্‌যাপন। আর এই শুভ কর্মের জন্য, গত বছরের চেয়ে এবছর আরও বড় করে ফিরে এসেছে এই অনুষ্ঠান। এবছর তাই শিল্পী তালিকাও বেশ লম্বা…

শ্রীকান্ত আচার্য্য

শুভমিতা

রাঘব, সঙ্গে তাঁর দুই কন্যা আনন্দী-আহিরী

রূপঙ্কর এবং তাঁর ব্যান্ড ইউনিসন

মনোময় এবং তাঁর পুত্র আকাশ

সুরজিৎ চট্টোপাধ্যায়

উজ্জ্বয়িনী

রিতিকা সাহানী

তিমির বিশ্বাস

বৃষ্টিলেখা

গৌরব সরকার

তনিকা

স্নিগ্ধদেব

অরুণাশিস

দুর্নিবার সাহা

পৃথিবী

পরিধি

নাইয়র

ফলে বুঝতেই পারছেন নবীন এবং অভিজ্ঞ প্রজন্মের মধ্যে একটি সেতু হিসেবে কাজ করবে লোপামুদ্রা মিত্রের নতুন গানের পাব্বনি। শুধু লোপামুদ্রার একটাই আবেদন, ‘‘যাঁরা সবসময় বলেন, বাংলা গানের পাশে আছি। তাঁরা সত্যি সত্যি থেকে দেখান। হলে দর্শক না থাকলে কিন্তু কোনও অনুষ্ঠানই সাফল্য পায় না। ভাল বাংলা গান শুনতে হলে আপনাদের আসতেই হবে আগামীকাল, অহীন্দ্রমঞ্চে। গান শোনানোর দায়িত্ব তো আমাদের… ফলে আর কী… তৈরি হয়ে যান এই বিরাট গানযজ্ঞের সঙ্গী হতে। চলুন দেখে নিই, শিল্পীরা কী বলছেন…

Natun Gaani

Kangana-Ranaut-Akshay-Kumar-small0

কঙ্গনার মেকআপ…

বিখ্যাত হলিউড সিনেমা ‘ক্যাপ্টেন মার্ভেল’-এর প্রস্থেটিকে কাজকর্ম করেছিলেন তিনি। সেই জেসন কলিনসের ঘাড়েই এবার জয়ললিতার বায়োপিকে কঙ্গনা রানাওয়তের লুক সেট করার গুরুদায়িত্ব এসে পড়েছে।

কঙ্গনার মেকআপ…

Kangana-Ranaut-Akshay-Kumar-big0 বিখ্যাত হলিউড সিনেমা ‘ক্যাপ্টেন মার্ভেল’-এর প্রস্থেটিকে কাজকর্ম করেছিলেন তিনি। সেই জেসন কলিনসের ঘাড়েই এবার জয়ললিতার বায়োপিকে কঙ্গনা রানাওয়তের লুক সেট করার গুরুদায়িত্ব এসে পড়েছে। জয়ললিতার বায়োপিক নিয়ে শুরু থেকেই জল্পনার শেষ ছিল না। প্রথমে শোনা গিয়েছিল বিদ্যা বালান এই ছবিতে কাজ করতে চলেছেন। তারপর জানা যায়, কঙ্গনা রাজি হয়েছেন ছবিটি করতে। এর মধ্যেই রটেছিল টাকাপয়সার সমস্যার জন্য নাকি বাতিল হয়ে গিয়েছে ছবিটি। তবে সেসব নাকি নেহাতই ‘বাজে কথা’ বলে উড়িয়ে দিয়েছেন নির্মাতারা। জানা গিয়েছে, এর মধ্যেই লস এঞ্জেলস উড়ে যাবেন কঙ্গনা, জেসন কলিনসের সঙ্গে বসে নিজের লুক সেট করতে। দিওয়ালির পরে শুরু হবে জয়ললিতার বায়োপিক ‘থালাইভি’র শুটিং।

Jason Collins | Kangana Ranaut | Thalaivi | jayalalithaa

Amartya-Ray-small

বলিউডে চুণী গোস্বামীর চরিত্রে বাংলার অমর্ত্য

দিনটা ছিল সেপ্টেম্বর মাসের চার তারিখ, বছরটা ১৯৬২… জাকর্তার মাটিতে দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে লড়াইটা সহজ ছিল না ভারতীয় ফুটবল টিমের। তার উপর আবার দু’জন ডিফেন্ডারেরই চোট, গোলকিপারের জ্বর! সকলে প্রায় ধরেই নিয়েছিলেন, ভারতীয় দলের কোনও আশা নেই, একজন বাদে।