magazine_cover_12_April_19.jpg

Tolly News

‘অন্দরকাহিনী’ এবার বাংলাদেশে

এখন অবধি ৪৩-টি ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল এবং ২৮-টি পুরস্কার জেতা হয়ে গিয়েছে। বেঙ্গালুরু, হায়দারাবাদ থেকে শুরু করে শ্রীলঙ্কা, ফ্লোরিডা, অনেক জায়গাতেই ছবিটি ঘুরে বেড়িয়েছে এবং প্রশংসাও কুড়িয়েছে। তবে এবার অর্ণব মিদ্যা পরিচালিত ‘অন্দরকাহিনী’ যাচ্ছে বাংলাদেশে। সেখানকার সিলেট আর্ন্তজাতিক চলচ্চিত্র উৎসব-এর ওপেনিং ছবি হিসেবে প্রদর্শিত হবে ‘অন্দরকাহিনী’। ছবিতে প্রিয়ঙ্কা সরকারকে দেখা যাবে চারটি অবতারে। সঙ্গে রয়েছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, সায়নী ঘোষ, রাজেশ শর্মা, অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায় সহ প্রমুখ শিল্পীরা। তবে চলচ্চিত্র উৎসবে প্রশংসিত হলেও, থিয়েট্রিক্যাল রিলিজ়ের ক্ষেত্রে সমস্যায় পড়েছে ছবিটি। এই খবরটি প্রথম আনন্দলোক-এই বেরিয়েছিল। যদিও বর্তমানে সমস্যার কিছুটা হলেও সুরাহা মিলেছে। বাংলাদেশে রওনা দেওয়ার আগে আনন্দলোক-কে পরিচালক অর্ণব জানান, ‘‘সিলেট থেকে ফিরে এসে আশা করি আপনাদের ভাল খবর দিতে পারব। এর আগেও ‘আসা যাওয়া মাঝে’ সহ অনেক ভাল ছবিই হলে রিলিজ় করতে সমস্যায় পড়েছিল। কিন্তু ওয়র্ড অফ মাউথ পাবলিসিটির জেরে ছবিগুলো পরবর্তীকালে ভাল শো পায়। আমার বিশ্বাস, ‘অন্দরকাহিনী’র সঙ্গেও সেরকম কিছুই হবে। আমার ছবির নায়িকা প্রিয়ঙ্কাও খুব চেষ্টা করছে, যাতে ছবিটি ঠিকমতো রিলিজ় করা যায়। আশা করি, মাস দুয়েকের মধ্যেই হলে ছবিটি দর্শকরা দেখতে পাবেন। আমাদের তো অল্প বাজেটের ছবি। কিন্তু অনেক প্যাশন নিয়ে ছবিটি করা। ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে সকলে প্রশংসাও করছেন। এখন একটু ভালভাবে ছবিটি রিলিজ় করতে পারলে আরও ভাল লাগত।’’ এই প্রসঙ্গে প্রিয়ঙ্কাকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনিও জানান, ‘‘খুব ভাল লাগবে যদি ‘অন্দরকাহিনী’ হলে রিলিজ় করে। এই ছবির জন্য অনেক জায়গা থেকে সেরা নায়িকার জন্য পুরস্কার পেলাম। সকলেই আমার কাজের প্রশংসা করেছেন। তবে এটা তো অনেকদিন আগের শুটিং। তাই এবার তো সকলেরই লুক বদল হচ্ছে। সেটা খুব চোখে লাগবে।’’

আসিফ সালাম